ব্রুকলিনে ‘টাইম টেলিভিশন ঈদ আনন্দ ও পথমেলা’ ২৩ জুন


পথমেলা

বাংলাদেশি-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসেঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিল যৌথভাবে ব্রুকলীনে ঈদ আনন্দ ও পথমেলা-২০১৯ এর আয়োজন করা হয়েছে। বিগত বছরের মতো এবারের আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর হচ্ছে নিউইয়র্কের টিভি চ্যানেল ‘টাইম টেলিভিশন’।

আগামী ২৩ জুন রোববার দিনব্যাপী ব্রুকলিনের চার্চ-ম্যাগডোনাল্ড এভিনিউতে ৫মবারের মতো এই মেলা আনুষ্ঠিত হবে। প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনোদনের পাশাপাশি দেশীয় শিল্প-সংস্কৃতি তুলে ধরা সহ সকল প্রবাসীর মধ্যকার সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির বন্ধনকে আরো জোরদার করার লক্ষ্যেই এই পথমেলার আয়োজক করা হয়েছে বলে আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। মেলায় দেশ ও প্রবাসর শিল্পীদের সঙ্গীত, নৃত্য ছাড়াও নানান পন্যের স্টল আর বিনোদনের ব্যবস্থা থাকবে। এক সাংবাদিক সম্মেলনে আয়োজকরা এসব তথ্য জানান।

সিটির জ্যাকসন হাইটসের পালকি পার্টি সেন্টারে গত ১১ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে ঈদ আনন্দ ও পথমেলা আয়োজক কমিটির আহবায়ক শাহ নেওয়াজ, বাফস’র সভাপতি কাজী আজম ছাড়াও টাইটেল স্পন্সর টাইম টেলিভিশন-এর সিইও এবং পরিচালক (কমিউনিটি অ্যাফেয়ার্স) সৈয়দ ইলিয়াস খসরু ও মেলা কমিটির সদস্য ফিরোজ আহমেদ বক্তব্য রাখেন। সাংবাদিক সম্মেলন উপস্থাপনায় ছিলেন সাংবাদিক বেলাল আহমেদ।

সাংবাদিক সম্মেলনে বাংলাদেশের ‘কোকিল কন্ঠ’ খ্যাত জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী বেবী নাজনীন উপস্থিত ছিলেন।
সাংবাদিক সম্মেলনে শাহ নেওয়াজ তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, বিগত চার বছরের মতো এবছরও বাংলাদেশী-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসেক্ট কমিউনিটি কাউন্সিল যৌথভাবে ঈদ আনন্দ ও পথমেলা-২০১৯ এর আয়োজন করা হয়েছে।

এবারের আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর হচ্ছে নিউইয়র্কের টিভি চ্যানেল ‘টাইম টেলিভিশন’। আগামী ২৩ জুন রোববার দিনব্যাপী ব্রুকলিনের চার্চ-ম্যাগডোনাল্ড এভিনিউতে ৫মবারের মতো ‘টাইম টেলিভিশন ঈদ আনন্দ ও পথমেলা’ আয়োজিত হবে। অনুষ্ঠানটির বিষয়ে আপনাদের বিস্তারিত জানাতেই আজকের সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সফল করতে আমরা আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা চাই।

তিনি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনোদনের পাশাপাশি বাংলাদেশের শিল্প-সংস্কৃতি প্রবাসে তুলে ধরা সহ সকল প্রবাসী বাংলাদেশীর মধ্যকার সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির বন্ধনকে আরো জোরদার করার লক্ষ্যেই আগামী ২৩ জুন ‘টাইম টেলিভিশন ঈদ আনন্দ ও পথমেলা’-এর আয়োজন করা হয়েছে। মেলায় নিউইয়র্ক সিটি প্রশাসন, স্থানীয় প্রশাসন ও মূলধারার রাজনীতিক সহ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ আমন্ত্রিত থাববেন। মেলায় থাকবে প্রবাস ও দেশের জনপ্রিয় শিল্পীদের সঙ্গীত ও নৃত্য। আরো থাকবে স্টল, শিশু-কিশোর-কিশোরীদের বিনোদনের জন্য বিশেষ আয়োজন। এবারের ঈদ আনন্দ ও পথমেলা সফল করতে তিনি সবার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

কাজী আজম বলেন, কোন ব্যবসায়িক স্বার্থে নয়, মূলত: প্রবাসী বাংলাদেশিদের অনন্দ-বিনোদন দিতে আর মূলধারার সাথে কমিউনিটির সম্পৃক্ততা বৃদ্ধির জন্যই বিগত বছরগুলোর মতো এবছরও পথমেলার আয়োজন করা হয়েছে। আর এসব আয়োজনে কমিউনিটি এগিয়ে যাচ্ছে।

আবু তাহের বলেন, কোন বাণিজ্যিক স্বার্থে নয়, কমিউনিটির পাশে থেকে ভালো কাজে সম্পৃক্ত থাকতেই টাইম টেলিভিশন অতীতের মতো এবছরও পথমেলার টাইটেল স্পন্সর হয়েছে। মূলধারার সাথে কমিউনিটির সম্পৃক্ততা বাড়াতে টাইম টেলিভিশন ভূমিকা রাখতে চায়।

পরবর্তীতে প্রশ্নোত্তর পর্বে এক প্রশ্নের জবাবে শাহ নেওয়াজ বলেন, সামার মৌসুমে নিউইয়র্কে অনেক পথমেলার আয়োজন করা হয়। কিন্তু ব্রুকলিনের এই মেলাতেই স্থানীয় পুলিশ প্রিসেঙ্কট সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে বাংলাদেশি কমিউনিটির পাশে দাঁড়ান। ফলে মূলধারার সাথে কমিউনিনিটির যোগাযোগ আরো বেড়ে যায়। এজন্যই এই মেলার গুরুত্বও বেশী। অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমর বক্তব্যের চেয়ে বিনোদনকেই বেশী গুরুত্ব দেবো।

অপর প্রশ্নের উত্তরে কাজী আজম বলেন, মেলা কমিউিিটর উদ্যোগ আর আয়োজনেই মেলার ব্যয় বহন করা হয়ে থাকে। এখানে ৬৬ প্রিসেঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিল শুধু সম্পৃক্ত থাকে। অপর প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের অনুদান, স্পন্সর আর স্টল থেকেই মেলার ব্যয় বহন করা হয়ে থাকে।