নিউইয়র্কে বাড়ি ভাড়াটের জন্য আইন প্রস্তাব পাশ, প্রথম ধাপে নগরী খুলছে ৮ জুন


ক্যুমো-ব্লাজিও

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত স্বল্প আয়ের ভাড়াটিয়াদের বাড়ি ভাড়া প্রদান থেকে সাময়িক নিস্কৃতি দিতে একটি আইন (বিল) পাস করেছে নিউইয়র্ক স্টেট আইন সভা।

বৃহস্পতিবার দ্য ইমার্জেন্সি রেন্ট রিলিফ অ্যাক্ট অব ২০২০; নামের এ বিল পাস হয়। বিলটি শিগগিরই অনুমোদনের জন্য রাজ্য গভর্নর এন্ড্রু ক্যুমো সমীপে পেশ করা হবে। অনুমোদনের অনুমোদনের পরই তা আইনে পরিণত হবে। বিলটি আইনে পরিণত হলে গত এপ্রিল থেকে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত ৪ মাসের ভাড়া দিতে হবে না আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত স্বল্প আয়ের লোকজনকে। এসব বাসার মালিকরা স্টেট প্রশাসনে ভাউচার সাবমিট করে ভাড়ার অর্থ পাবেন।

বিল পাশের পর এই বিল উত্থাপনকারিদের অন্যতম স্টেট এ্যাসেম্বলীম্যান ডেমক্র্যাট-ব্রুকলিন) স্টিভেন সিমব্রয়েজ বলেন, যারা করোনার শুরু থেকেই বেকার হয়ে পড়েছেন এবং যারা মাসিক আয়ের ৩০ ভাগের অধিক বাড়ি ভাড়া বাবদ ব্যয় করেন বাড়ি ভাড়া মওকুফের সুযোগ তারাই পাবেন। ৩ সদস্যের পরিবারের প্রধান হিসেবে যাদের বার্ষিক আয় ৮১৯২০ ডলার তারা এ সুবিধা পাবেন। (https://www.nysenate.gov/legislation/bills/2019/s8419)

এদিকে ২৮ মে শুক্রবার এন্ড্রু ক্যুমো বলেছেন, প্রথম ধাপেই চার লাখ লোক নিউইয়র্কে কাজ শুরু করতে পারবে। তিনি জানান, আগের ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসের রাজ্যে ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে । সংক্রমণের তাণ্ডব শুরু হওয়ার পর থেকে এটিই কোন একদিনে সর্বনিম্ন সংখ্যা। হাসপাতালে ভর্তি ও নতুন সংক্রমণের সংখ্যাও আশানুরূপ কমছে বলে তিনি জানান।

প্রথম দফা খুলে দেয়ার ধাপে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সতর্কতার নির্দেশাবলী পাঠানো হয়েছে। প্রস্তুতি নেয়ার জন্য নগর ও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এসব নির্দেশনা অনুযায়ী সবচেয়ে বেশী মৃত্যুর নগরী খুলে দেয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে।

রিটেইল স্টোরে ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশ খালি রাখতে হবে। প্রথম ধাপে শপিং মল খুলছে না । সেলুনে শুধুমাত্র চুল কাটার সার্ভিস থাকবে এবং কর্মচারীদের কোভিড-১৯ টেস্ট করতে হবে কাজ শুরু করার আগে। বিস্তারিত নির্দেশাবলী নগর ও রাজ্য সরকারের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে।

করোনা স্টিমুলাস প্যাকেজ (কেয়ারস এ্যাক্ট) তহবিল থেকে পাওয়া অর্থ থেকেই নিউইয়র্ক স্টেট স্বল্প আয়ের লোকজনের বাড়ি ভাড়া বাবদ ১০০ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ করছে। যারা করোনার শুরু থেকেই বেকার হয়ে পড়েছেন এবং মাসিক আয়ের ৩০ ভাগের অধিক বাড়ি ভাড়া বাবদ ব্যয় করেন বাড়ি ভাড়া মওকুফের সুযোগ তারাই পাবেন।স্বল্প আয়ের লোকজনকে এ সুবিধা দেয়ার কথা বলা হয়েছে আইন প্রস্তাবে। পরিবারের সব সদস্যদের আয় হিসেব করে এ ভাউচার সুবিধা প্রাপ্তির প্রাক যোগ্যতার কথা আইন প্রস্তাবে বলা হয়েছে।এলাকা অনুযায়ী পরিবার প্রতিটি মধ্যম আয়ের ৮০ শতাংশ পর্যন্ত আয় করা লোকজন এ আইনের সুবিধা পাবেন। রাজ্য সিনেটের সদস্য ব্রায়ান কাভানাগ এ আইনপ্রস্তবাটি স্পন্সর করেছেন।

করোনায় লণ্ডভণ্ড নিউইয়র্কের জনজীবন।লোকজনের কাজ নেই তিন মাস থেকে। বেকার ভাতা , নাগরিক প্রণোদনা হাতে আসলেও ভাড়া প্রদান নিয়ে নগরীর কর্মজীবীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। এরমধ্যে ভাড়াটেদের বকেয়া ভাড়ার জন্যে উচ্ছেদ করা যাবে না মর্মে একটি নির্দেশ জারি করেন রাজ্য গভর্নর। ২০ আগস্ট পর্যন্ত সেই নির্দেশ বহাল রয়েছে। বাড়ির মালিক এবং ভাড়াটেরা ফেডারেল সরকারের সরাসরি কোন সহযোগিতার জন্য অপেক্ষা করছিলেন।

নিউইয়র্কে বাড়ি ভাড়া নিয়ে ইমার্জেন্সি রিলিফ আইনটি রাজ্য গভর্নর স্বাক্ষর করলে ভাড়াটে ও বাড়ির মালিকদের একটি অংশ এ কঠিন সময়ে সুবিধা পাবেন। যদিও সব সমস্যাগ্রস্থ ভাড়াটে বা বাড়িওয়ালার জন্য এ তহবিল পর্যাপ্ত নয় বলেই আইনটি নিয়ে কাজ করছেন এমনটি আইনপ্রণেতারা জানিয়েছেন।

ads