ওয়ালটনের মত বিত্তবানরা সাহায্যে এগিয়ে আসলেই স্বাগত জানাবেন ডিসি


লালমনিরহাট

লালমনিরহাট জেলায় মানবিক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক্স পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।
মানবিক সাহায্যের মধ্যে ছিল মানুষের দৈনন্দিন পণ্যের চাহিদা মেটানোর চেষ্টা।সমাজের দুস্থ এবং নিম্ন আয়ের মানুষদের কাছে পৌছে যায় এই সাহায্য।জেলার প্রায় সব গুলো আউটলেট থেকে এ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়,চাল,ডাল,আলু,লবন,পিঁয়াজ তেলের একেকটি করে প্যাকেট করে প্রান্তিক দুস্থ এবং নিম্ন আয়ের মানুষদের দোরগোড়ে,হাতে হাতে পৌঁছে দেন ওয়ালটন প্রতিনিধিরা।

ওয়ালটনের লালমনিরহাট প্লাজার ম্যানেজার কবির আহমেদ এবং হাতিবান্ধা প্লাজার আশিস রায় জানান,তারা তাদের উর্ধ্বতন ব্যবস্থাপনার নির্দেশে ত্বরিৎ সাহয্য প্রদানে এগিয়ে আসেন।এবং তাদের দক্ষ প্রতিনিধিরা মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দেন এই মানবিক সাহায্যের প্যাকেট।

হাতিবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে আওয়াজবিডির কথা হলে তিনি জানান,ওয়ালটন সহ প্রত্যেকটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তিদের সাধুবাদ জানাই।খেটে খাওয়া মানুষ,যারা নিম্ন আয়ের তাদের পাশে দাঁড়ানো উচিত। তবে যেই সাহায্যের হাত বাড়াক,তাদের প্রত্যেককেই স্বাস্থ্যবীধি মেনেই করা উচিত।ওয়ালটনের মত প্রতিষ্ঠানের মানবিক সাহায্য প্রদানকে কি চোখে দেখছেন? এমন প্রশ্নে তিনি জানান অবশ্যই তাদের সাধুবাদ জানাই।এবং মাঠে কাজ করলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে গাইডলাইন,তথ্য দিয়ে সাহায্য করা হবে।

লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আবু জাফরের সাথে আওয়াজবিডির আলাপকালে বলেন,ওয়ালটনের মত করে অন্য কম্পানি গুলো এই সময়ে এগিয়ে আসলে আমরা তাদের স্বাগত জানাবো। সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে খুবই ভাল হয়। এবিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও আবেদন জানিয়েজেন বিত্তবানদের প্রতি।যারা কাজ হারিয়েছেন সরকারি ভাবে তাদের সহযোগিতা করা হচ্ছে। বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে আরও ভাল হয়।

তিনি এও জানান, উপজেলা প্রশাসন গুলো বা নির্বাহী কর্মকর্তাদের সাথে যদি সমম্নয় করা হয়, তাতে সবার কাজ করতে সুবিধা হবে। বণ্টন ভাল হবে।

এসএ/আওয়াজবিডি

ads