জানাজা ছাড়াই তড়িঘড়ি করে দাফন, এলাকাজুড়ে আতঙ্ক


janaja chara dafon

জানাজা ছাড়াই মরদেহ দাফন করা হয়েছে নড়াইলে। এ নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) রাত ৯টার দিকে ওই যুবকের (২৫) মৃত্যু হয়।

দক্ষিণ নড়াইল সরকারি গোরস্থানের পাশের বাসিন্দা সুলতানের ভাষ্য ‘রাত একটার দিকে তড়িঘড়ি করে একটি মরাদেহ দাফন করা হয়েছে।’

 
জানা গেছে, শ্বাসকষ্ট ও বমির সমস্যা নিয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তির ১৫ মিনিটের মধ্যেই মারা যান এক যুবক। এর আগে তিনি ১০ দিন ধরে জ্বর, বমি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন।

ওই যুবকের এক নিকট আত্মীয় জানান, তিনি ১০ দিন আগে অসুস্থ হন। করোনা ভাইরাসের বিভিন্ন উপসর্গ থাকায় তার পরিবার আইইডিসিআর’র হটলাইনে যোগাযোগ করেও সন্তোজজনক কোনো উত্তর পায়নি। কয়েকদিন ধরে একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। কিন্তু অবস্থার কোনো পরিবর্তন না হওয়ায় মঙ্গলবার রাত পৌনে ৯টার সময় সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবার। ভর্তির পর ওয়ার্ডে নেয়ার সময় মারা যান তিনি। পরে রাতেই তাকে দাফন করা হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তৌহিদুর রহমান বলেন, ওই রোগী শ্বাসকষ্ট ও বমি নিয়ে হাসপাতালে আসেন। জরুরি বিভাগ থেকে ভর্তি ও চিকিৎসা সেবা দিয়ে ওয়ার্ডে পাঠানোর পর তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) মশিউর রহমান বাবু বলেন, ‘১৫ মিনিটে কোনো করোনায় আক্রান্ত রোগী মারা যেতে পারে না। তিনি মিনি স্ট্রোকে মারা গেছেন।’

আরএইচ/আওয়াজবিডি

ads