করোনা প্রতিরোধে ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগ


ওসমান

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব। এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৭ হাজার। বাংলাদেশে ইতিমধ্যে এর প্রাদূর্ভাব দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৫জন। মহামারী করোনাভাইরাস থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার উপায় পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন থাকাসহ সচেতনতা অবলম্বন। ছোঁয়াচে রোগ হওয়ায় জনসমাগমস্থলগুলো থাকে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। এ চিন্তা মাথায় রেখে স্ব-উদ্যোগে জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়েছে ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রলীগ।

 

শনিবার (২৮ মার্চ) বিকালে নারগুন ইউনিয়নের ছোট খোঁচাবাড়ি, শাপলা, সেন্টার হাট সড়ক ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানি দিয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়। এসব দেখভাল করার জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ নারগুন ইউনিয়নের কর্মীদের কাজে নিয়োজিত করেছেন।

বুধবার সকালে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার নারগুন ইউনিয়নের সভাপতি শ্রী সত্যেনন্দ্র নাথ রায় এবং সাধারন সম্পাদক সেরেকুল ইসলাম।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গণি, নারগুন ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হানিফ সংকেত, সহ-সভাপতি রিপন ইসলাম, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক শাহীন ইসলাম, ৭নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিল রানা, সাধারন সম্পাদক শ্রী চন্দন সরকারসহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিভিন্ন শাখার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওসমান গণি বলেন, মহামারী করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে হলে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা ও সচেতনতার কোন বিকল্প নেই। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নির্দেশনায় ব্যক্তি উদ্যোগে বিশুদ্ধ পানির ট্যাঙ্কি, হ্যান্ড স্যানিটারাইজার, সাবানের বন্দোবস্ত করেছি, নিম্ন আয়ের মানুষদের মাঝে ব্লিচিং পাউডার বিতরণের পাশাপাশি শহরে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার চেষ্টা করেছি। মহামারী করোনাভাইরাস সম্পূর্ণ নির্মূল না হওয়া অব্দি এসব কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

ads