বদলি হওয়ার পর ইউএনওর আবেগঘন স্ট্যাটাস


ইউএনও

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ মাহমুদ হাসান সম্প্রতি বদলি হয়েছেন। বিদায় বেলায় ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি ইউএনও সৈয়দ মাহমুদ হাসানকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানানো হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি রাতে ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন ইউএনও।

উপজেলার উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ও স্থানীয়দের ভালোবাসার বিষয়টি তুলে ধরে ফেসবুক স্ট্যাটাসে ইউএনও লিখেছেন, প্রায় তিন বছর বোদা উপজেলায় ইউএনও হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে বদলিজনিত কারণে বিদায় নিলাম। চাকরির বহুমাত্রিকতার কারণে অনেক মানুষের অনেক প্রত্যাশা ছিল। তাই বিদায় বেলায় অনেক কিছু করতে না পারার অনুভূতি আমাকে আচ্ছন্ন করে আছে। অনেক কাজ করার ছিল। হয়তো বেশির ভাগই সম্ভব হয়নি। তবে কিছু কাজের কথা আলাদাভাবে অনেকদিন মনে থাকবে।

শিশু পার্ক, উপজেলা পরিষদ পুকুর, মঞ্চ, পরিষদ গেট, বাউন্ডারি ওয়াল, সামনের ল্যান্ড স্কেপিং, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্স ‘উথনাউ’ ইত্যাদি কাজগুলো আলাদাভাবে মনে থাকবে। ইট, সিমেন্ট, কাঠ ও পাথরের বাইরেও এই সৃষ্টিগুলোর পেছনে ছোট ছোট গল্প ছিল। ভুল ছিল, ভ্রান্তি ছিল, আবেগ ছিল, ভালোবাসা ছিল। সেই সঙ্গে ছিল অনেকের আন্তরিক প্রচেষ্টা ও সহযোগিতা।

তিন বছরে অনেক ঋণ আমার প্রিয় সহকর্মী, জনপ্রতিনিধি, বোদা উপজেলাবাসীর কাছে জমা হয়েছে। আলাদাভাবে কাউকে ধন্যবাদ জানিয়ে ছোট করতে চাই না। চলার পথে ভুলভ্রান্তিগুলো ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সরকারি চাকরিতে বদলি-বিদায় স্বাভাবিক বিষয়। তারপরও কষ্ট লেগেছে। তবে বিদায় আছে বলেই কিন্তু মানুষের ভালোবাসা অনুভব করার সুযোগ হলো।

গত ১১ ফেব্রুয়ারি ইউএনও সৈয়দ মাহমুদ হাসানকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানানো হয়। এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. ফারুক আলম টবিসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। ইউএনওর জন্য দোয়া ও শুভকামনা জানান তারা।

ads