যুবলীগ সভাপতিকে কুপিয়ে আহত করলেন ‘তরুণলীগের’ সভাপতি


কুপিয়ে আহত

রায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পনির ভূঁইয়াকে (৪৮) কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে তরুণ লীগের সভাপতি বিপ্লব প্রধান বিরুদ্ধে। আহতের ভাই সাতগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল ভুইয়ার দাবি, জুয়া খেলায় বাধা দেওয়ায় তার ভাইকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে প্রত্যক্ষদর্শী ও

পুলিশ জানায়, বুধবার (৩ জুন) রাত ৮টার দিকে উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের সাতগ্রাম বাবু বাড়িতে (পরিত্যক্ত জমিদার বাড়ি) ইউনিয়ন তরুণলীগের সভাপতি বিপ্লব প্রধানের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জন যুবক জুয়ার আসর বসায়। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন তাদের জুয়া খেলায় বাধা প্রদান করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাতগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল ভূইয়া ও যুবলীগ সভাপতি পনির ভূইয়ার ভাই মনির হোসেন মোল্লার সঙ্গে তর্কাতর্কি হয় তরুণ লীগের সভাপতি বিপ্লব প্রধানের।

খবর পেয়ে যুবলীগ সভাপতি পনির ভূইয়া ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝগড়াটি মিমাংসার চেষ্টা করেন। দুজনকেই ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দেন। পরে রাতে তরুণলীগ সভাপতি বিপ্লব প্রধান শতাধিক সহযোগী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পনির ভূইয়ার উপর হামলা চালায়। পনির ভুইয়াকে গলায় কাঁধে ও পেটে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। এ সময় তাকে বাঁচাতে কয়েকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তাদেরও কুপিয়ে আহত করে।

এ নিয়ে দুইপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- সাতগ্রাম ইউনিয়ন যুকলীগের সভাপতি পনির ভুইয়া (৪৮), সাতগ্রাম ইউনিয়ন তরুণ লীগের সভাপতি বিপ্লব প্রধান (২৮), রুবেল (২২), জয় (২২), জাকারিয়া (২৫), জুয়েল প্রধান (৩০), হুমায়ুন (৪৫)।

আহতদের মাধবদী একটি কেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে আড়াইহাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহত পনির ভুইয়ার ভাই সাতগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বাবুল ভুইয়া জানান, বিপ্লব প্রধানের নেতৃত্বে প্রতিদিনই ১৫ থেকে ২০ জন যুবক এলাকায় জুয়ার আসর বসায়। এলাকাবাসী এতে বাধা দিলে তারা এ হামলা চালায়।তরুণ লীগের সভাপতি বিপ্লব প্রধানের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি তিনি শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছেন। তবে এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ দেননি।

ads