নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ব্রীজ নির্মাণ কাজ শেষ না হতেই ভেঙ্গে পড়তে শুরু


ব্রীজ

ব্রীজ নির্মাণের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করেই নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ব্রীজ নির্মাণ করায় কাজ শেষ না হতেই ভেঙ্গে পড়তে শুরু করল ব্রিজের বিভিন্ন অংশ।

এদিকে উপজেলা প্রকৌশলীর কাছে এ বিষয়ে সঠিক জবাব মেলেনি। ঘটনাটি নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমূল ইউনিয়নে আমলিতলা বাজার-সয়রাপাড়া সড়কে ঘটেছে।

বিভিন্ন সুত্রে জানায়, এলজিইডি’র অর্থায়নে উপজেলার বলাইশিমূল ইউনিয়নে আমলীতলা বাজার-সয়রাপাড়া সড়কটিতে পাকা করণ কাজ চলছে। ওই রাস্তায় দু’টি খালের ওপর দুইটি ব্রীজ নির্মাণ করা হয়েছে। আমলীতলা বাজারের পাশে নির্মাণাধীন ব্রীজের এপ্রোচে মাটি দেয়ার সময় ভেঙ্গে পড়তে শুরু করে ব্রীজের বিভিন্ন অংশ। ব্রীজের ধসে পড়া অংশে হাত দিলেই খসে পড়ে ব্যবহারকৃত সিমেন্ট-বালু। ব্রীজ নির্মাণের নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে অনিয়ম ও দুর্নীতি করে নিম্নমানের কাজ করায় ব্রীজের বিভিন্ন অংশ ভেঙ্গে পড়ছে বলে স্থানীয় ব্যাক্তিদের অভিযোগ।

ব্রীজ নির্মাণেই যদি এই অবস্থা হয় তাহলে রাস্তায় কি পরিমাণ দুর্নীতি হবে এমন প্রশ্ন রাখেন এলাকাবাসী। ওই রাস্তায় নির্মাণ করা ওপর ব্রীজেও নিম্নমাণের সামগ্রী ব্যাবহার করা হয়েছে বলে স্থানীয়রা জানায়।

স্থানীয় আজমল হোসেন বলেন, ব্রীজ নির্মাণে নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় ভেঙ্গে পড়া শুরু করছে। তার দাবী পুনঃরায় ব্রীজটি নির্মাণ করে দিতে হবে না হলে এলাকাবাসী মানবেনা।

এদিকে ওই প্রকল্পের টিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কি নাম বা মূল ঠিকাদারকে ও বরাদ্ধ কত উপজেলা প্রকৌশলী জাকির হাসানের কাছে জানতে চাওয়া হলে তার কাছ থেকে সঠিক জবাব মেলেনি।

তবে তিনি বলেন, বিষয়টি তাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। ব্রীজটি পুনঃরায় নির্মাণ করা না হলে টিকাদারকে বিল দেয়া হবে না।

ads