ঈদ ঘিরে কাতারে কড়াকড়ি


কাতার

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত বেশিরভাগ বাণিজ্যিক কর্মকাণ্ড বন্ধ রাখতে নতুন করে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে কাতার। এর আওতায় ঈদুল ফিতরের সময়ে দেশটির খাবার, ওষুধ এবং জরুরি সামগ্রীর দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকান বন্ধ থাকবে।

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম সম্পদশালী কাতারে এখন পর্যন্ত ৩৩ হাজার ৯৬৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের। গত ১৬ মে থেকে বাইরে বের হওয়ার সময় নাগরিকদের মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে দেশটি।

এছাড়া আগামী ২২ মে থেকে দেশটির সব নাগরিক ও বাসিন্দাকে বাড়ির বাইরে বের হওয়ার সময় ফোনে বিশেষ একটি অ্যাপ ইনস্টল রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ব্লুটুথ ও জিপিএস প্রযুক্তি ব্যবহার করে ওই অ্যাপটি কোভিড-১৯ আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসার তথ্য রেকর্ড রাখে। আর পরে তা ব্যবহারকারীকে জানিয়ে দেওয়া হয়।

কাতার সরকারের ঘোষিত নির্দেশনায় একই গাড়িতে দুই জনের বেশি যাতায়াত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে পারিবারিক ড্রাইভার কিংবা ট্যাক্সি ব্যবহারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ তিন জন উঠতে পারবে। এই সময়ে যাত্রীবাহী বাসগুলো ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী বহন করবে।

দলবদ্ধ হয়ে ব্যায়াম করাও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কেবলমাত্র বাড়ির বাইরে যথাযথ শারিরীক দূরত্ব বজায় রেখে খেলাধুলা করা যাবে। এসব নির্দেশনা অমান্যে তিন বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড এবং দুই লাখ রিয়াল জরিমানার বিধান করা হয়েছে।

এসএম/আওয়াজবিডি

ads