বিচ্ছেদ নিয়ে পরীর সিদ্ধান্তই মেনে নেবেন তামিম


তামিম

চলতি বছর এপ্রিলে বেশ ঘটা করে জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনির আর বিনোদন সাংবাদিক তামিম হাসানের বাগদান সম্পন্ন হয়। এরপরই পরী ঘোষণা দেন যেকোনো বছরের ১৪ এপ্রিল তারা বিয়ে করবেন।

তবে বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, পরী-তামিমে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। পরীও তার ফেসবুক থেকে তামিমের সঙ্গে থাকা বিভিন্ন সময়ে তোলা অনেক ছবি সরিয়ে ফেলেছেন। ফেসবুকে নেই তাদের নতুন কোনো ছবি। এ বিষয়ে পরীর কাছে জানতে চাইলে বারবারই তা এড়িয়ে গেছেন তিনি।

অবশেষে জানা গেল, তাদের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না। এমনকি বিয়ের সিদ্ধান্ত থেকেও সরে এসেছেন হালের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

পরী জানান, বাগদান না হলে বুঝতাম না, আমি বিয়ের জন্য একদমই প্রস্তুত না। গোষ্ঠী মেনটেইন করার যে বিশাল হিসাব আছে, সে বিষয়ে আমি ভীষণ অপরিপক্ব। সময়ই কথা বলবে।

এছাড়াও পরী অভিযোগের তীর ছোড়েন তামিমের দিকে। তিনি বলেন, ‘আমার কাজকে কেউ যদি অসম্মান করে, সেখানে আমি একচুল আপস করব না। ’

এ বিষয়ে তামিম হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে তিনি বলেন, ‘আমাদের মধ্যে মান-অভিমান চলছে, এটা ঠিক আছে। আমিও এটা জানি। যেহেতু আমাদের এখনো বিয়ে হয়নি, এর মধ্যে যদি সিদ্ধান্তটা এমন হয়, তবে হতে পারে। ওর প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নেই। এই বিষয়ে পরীর যেকোনো সিদ্ধান্তে আমার সম্মান ও সমর্থন দুটোই আছে। ’