উত্তরের প্রার্থী নিশ্চিত থাকলেও দক্ষিণ নিয়ে দোদুল্যমান বিএনপি


উত্তরের প্রার্থী

ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে নেতারা নানা কথা বললেও শেষ পর্যন্ত বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেয়ার পক্ষেই থাকবে। শক্তিশালী প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগকে টেক্কা দিতে অপেক্ষাকৃত তরুণ, উদ্দীপ্ত ও ক্লিন ইমেজের প্রার্থী নিয়ে ভাবছে দলটি।

উত্তরের প্রার্থী মোটামুটি ঠিক থাকলেও দক্ষিণের প্রার্থীতা নিয়ে এখনও দোদুল্যমান দলটি। তবে একটি ব্যাপার নিশ্চিত, সিনিয়র নেতাদের স্বজনরাই থাকছেন মেয়র দৌড়ের ট্রাকে। এটিএন নিউজ, ৪:০০ গত কয়েক বছরের নির্বাচনের অভিজ্ঞতা মোটেই ভালো নয় বিএনপির। কিন্তু নির্বাচনে অংশ না নেয়ার ভুলও আর করতে চায় না দলটি। বিশেষ করে সেটি যদি ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মতো গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন হয় তাহলে তো ছেড়ে কথা বলার প্রশ্নই আসে না। তাই এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে দলটি।

নেতাদের মুখে দলের অন্দরমহলের গুঞ্জনের সবচেয়ে বেশিবার উচ্চারিত এক নাম তাবিথ আওয়াল। গত নির্বাচনে তার পরিচয়টা বিএনপি নেতা আব্দুল আওয়াল মিন্টুর ছেলে হিসেবে বেশি থাকলেও এরই মধ্যে নিজের পরিচয়ও তৈরি করে নিয়েছেন তিনি।

আর নির্বাচন যখনই হোক দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার পছন্দের এই প্রার্থীই পাবেন উত্তরের টিকিট। প্রার্থী তাবিথের মানসিক প্রস্তুতি ও আত্মবিশ্বাসও তাই ভালোই হওয়ারই কথা।

উত্তরের প্রার্থিতা কিছুটা নির্ভার হলেও দক্ষিণে এর উল্টো। দুটি নামই প্রায় সমান তালে আসছে। আফরোজা আব্বাস ও ইশরাক হোসেন। দু জনই বিএনপির হেভিওয়েট দুই প্রার্থীর স্বজন। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস সবচেয়ে বেশি নজরে আসেন এই সিটির গত নির্বাচনে স্বামীর হয়ে প্রচারণায় নেমে। এরপরে মহিলা দলের সভাপতি হয়েও প্রশংসা কুড়ান।

এদিকে সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আলোচনায় এলেও দলে ঐক্যের খাতিরে শেষ পর্যন্ত বলি হন। এখন মেয়র নির্বাচনকে সামনে রেখে আবারো নিজকে প্রস্তুত করছেন। এই দুজনকে নিয়ে আলোচনায় অনেকেরই মনে পড়ছে একসময়ের প্রবল প্রতিদ্ব›দ্বী আব্বাস-খোকার সময়গুলো।

যে কোনো নির্বাচনকে সামনে রেখে সমন্বয়ের জন্য টিম করে বিএনপি। কিন্তু ঢাকার মেয়র নির্বাচনে এখনো কোনো টিম হয়নি। কারণ বিষয়টি সরাসরি দেখছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এতেই বোঝা যায় ঢাকাকে মুঠোয় পেতে কতটা মরিয়া বিএনপি।

সরকার বেকায়দায় আছে দাবি করে বিএনপি আবারো দিনবদলের স্বপ্নে বিভোর। তাই বিশ্বাস যতটা থাকুক বা নাই থাকুক নির্বাচনকেই সেরা পথ হিসেবে দেখছে দলটি।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি