ঢাকা মহানগরী জুড়ে নেয়া হয়েছে নিশ্ছিদ্র ও সুসমন্বিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার


ডিএমপি কমিশনার

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি) কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, আগামীকাল ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। এ দিন বাংলাদেশের বিভিন্ন শ্রেণি, পেশাজীবীর মানুষ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করবে। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগরীতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর ও ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ঘিরে আমরা ইতোমধ্যে নিশ্ছিদ্র ও সুসমন্বিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

আজ বুধবার ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ কথা বলেন।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, বঙ্গবন্ধু যাদুঘর ও বনানী কবরস্থান পুরোটাই সিসিটিভি’র আওতায় থাকবে এবং আমরা এই দুটি ভেন্যু ডিএমপি’র ডগ স্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করব। ধানমন্ডি ৩২ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা প্রত্যেক ব্যক্তিকে গেটের ভিতর দিয়ে তল্লাশী করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে প্রবেশ করানো হবে। একইভাবে বনানী কবরস্থানেও আর্চওয়ে, চেকপোস্ট থাকবে এবং সকলকে তল্লাশী করে প্রবেশ করানো হবে।

এ সময় শ্রদ্ধা নিবেদনের পর ভিতরে কোন রকম জটলা তৈরি না করে অন্যদের শ্রদ্ধা নিবেদনের সুযোগ করে দেয়ার জন্য নগরবাসীকে অনুরোধ জানান ডিএমপি কমিশনার।

তিনি বলেন, শোক দিবস উপলক্ষে পুরো মহানগরীজুড়ে অজস্র রাজনৈতিক সংগঠন কাঙালি ভোজ এবং দোয়া মাহফিলের আয়োজন করবে। সেখানেও আমরা পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি। সব মিলিয়ে ঢাকা মহানগরীজুড়ে আমাদের জাতীয় শোক দিবসের যে কর্মসূচি থাকবে সেটি যাতে যথাযথ মর্যাদা ও নিরাপত্তার সাথে উদযাপিত হয়, সেই ব্যাপারে আমরা অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে সমন্বয় করে মহানগরী জুড়ে নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলেছি।

এ ক্ষেত্রে সকলকে কর্তব্যরত পুলিশকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান তিনি।

এসএম/আওয়াজবিডি