সীমিত পরিসরে খুলছে ঢাবি


সনদ উত্তোলনে অনলাইন আবেদন: বিড়ম্বনা থেকে মুক্তি পাচ্ছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে ৩১ মে থেকে দেশের সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও অফিস আদালত খুলে দেওয়া হচ্ছে। সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ১৫ জুন পর্যন্ত। কিন্তু সীমিত পরিসরে প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

গতকাল শনিবার (২৯ মে) একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের হল অফিসও খুলে দেয়া হচ্ছে সীমিত পরিসরে। তবে শিক্ষার্থীদের জন্য এখুনি হলে যাওয়ার সুযোগ থাকছে না। আবাসিক হলসমূহের সার্বিক পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে ও নিজস্ব স্থাপনা রক্ষণাবেক্ষনে সংশ্লিষ্টদের সহায়তা দেয়ার প্রয়োজনে অতি সীমিত পরিসরে অফিস খোলা রাখবেন। তবে মূল গেট সার্বক্ষণিক বন্ধ থাকবে।

ইতোমধ্যে অনুষ্ঠিত হওয়ার পরীক্ষা সমূহের ফলাফল তৈরির জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশ ও চলাচল নিয়ে সকল বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে।

এছাড়া আরো জানানো হয়, স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল অফিসসমূহ পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে ক্লাস বা পরীক্ষা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। করোনা পরস্থিতি বিবেচনা করে এ ব্যাপারে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ন্যূনতম জনবল দিয়ে চালু রাখা হবে অফিস কার্যক্রম। অফিসে যাতায়াতের সময় কোনো কর্মকর্তা কর্মচারী গণপরিবহন ব্যবহার করতে পারবেন না। প্র‍য়োজনে অফিস প্রধানের নির্দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব পরিবহন ব্যবহার করা যাবে।

ads