আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত বিধবার পাশে বশেমুরবিপ্রবি ছাত্রলীগ


বশেমুরবিপ্রবি

করোনা মহামারিতে যখন লন্ডভন্ড গোটা বিশ্ব ঠিক তখনই দেশে হানা দিল ঘূর্নিঝড় আম্ফান ৷ যেখানে পেটের ক্ষুধা নিবারণই কষ্টকর হয়ে দাড়িয়েছে তার ভিতর আম্ফান তান্ডবে নিজের শেষ আশ্রয়স্থল বাড়িটি হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন নলছিটি উপজেলার রানাপাশা ইউনিয়নের এক বিধবা নারী ৷ ঘূর্নিঝড় আমফানের তান্ডবে গাছ পড়ে ভেঙ্গে গেছে তার বাড়িটি ৷

এখবর পেয়ে বিধবা নারীর বাড়ির চাল ঠিক করতে আর্থিক অনুদান দিয়ে সাহায্য করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগনেতা মুহাম্মদ সোলায়মান ৷

এব্যাপারে কথা বললে বশেমুরবিপ্রবির ছাত্রলীগনেতা মুহাম্মদ সোলায়মান জানান, “ঘূর্নিঝড় আম্ফানের তীব্র ছোবলে আমাদের অঞ্চলের অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।অনেকের টিনের চাল উড়ে গেছে এবং গাছপালা পড়ে বাড়ি-ঘর নষ্ট হয়ে গেছে। এলাকা পরিদর্শন করে এসব ব্যাপারে আমার এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান মহোদয়কে অবহিত করেছি এবং নিজের সাধ্য অনুযায়ী পাশে থাকার চেষ্টা করছি। মানুষ মানুষের জন্য।ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে আমি গর্বিত যে দুর্যোগের সময় আমি একজন অসহায় মা'কে সাহায্য করতে পেরেছি৷”

আর্থিক সহযোগিতা পেয়ে বিধবা নারী অত্যন্ত আনন্দের সহিত জানান, কোনোরকম টানাটানির সংসার আমার ৷ করোনা পরিস্থিতিতে সরকার কর্তৃক কিছু সাহায্য পেয়েছিলাম তা দিয়েই সংসার চলছিল ৷ এর ভিতর বন্যায় গাছ পড়ে আমার বাড়িটা ভেঙ্গে যায় ৷ এ নিয়ে আমি চিন্তিত ছিলাম অনেক ৷ এব্যাপারটা ছাত্রলীগের সোলায়মান জানতে পেরে সাথে সাথে এসে আমার খোঁজখবর নেয় এবং পরবর্তীতে আমার বাড়ির চাল ঠিক করতে আর্থিক সহযোগিতা করে ৷ আমি তার দীর্ঘায়ু কামনা করছি ৷

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগ নেতা মুহাম্মদ সোলায়মান ইতোপূর্বেও চলমান করোনা পরিস্থিতিতে দুস্থ মানুষদের আর্থিক অনুদান দিয়ে সহযোগিতা করেন।

এসএ/আওয়াজবিডি

ads