কুমারী পূজায় প্রতিমা মুসলিম মেয়ে


মুসলিম মেয়ে

কলকাতার দুর্গাপূজায় অষ্টমী তিথিতে কুমারী পূজাকে কেন্দ্র করে কলকাতার সন্নিকটে বাগুইআটির পূজা মণ্ডপ ধারক ও বাহক হয়ে রইল সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির। বাগুইআটির দত্তবাড়িতে মহাষ্টমীর পূজায় কুমারী রূপে পূজিত হলেন মুসলিম পরিবারের এক শিশু। নাম ফতিমা, বয়েস চার বছর।

বাগুইআটির বাসিন্দা তমাল দত্ত ২০১৩ সাল থেকে নিজের বাড়িতেই পূজা করে আসছেন। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার তমালবাবুর দীর্ঘদিনের ইচ্ছা বাড়ির পুজোয় হিন্দু নয় এমন কোনো মেয়েকে দেবী দুর্গা হিসেবে পূজা করা।

সেই ইচ্ছা পূর্ণ হলো এতদিনে। তমালবাবুর এই বাসনা জানতে পেরে এগিয়ে আসেন কামারহাটির বাসিন্দা মুহম্মদ ইব্রাহিম। মুহম্মদ ইব্রাহিমের ভাগ্নি চার বছরের ছোট্ট ফতিমা রবিবার অষ্টমীর দিন কুমারী রুপে পূজিত হলো বাগুইআটির দত্তবাড়িতে।

আগ্রার ফতেপুর সিক্রিতে মুদি দোকানে কাজ করেন ফতিমার বাবা মহম্মদ তাহির। মা ও বাবার সঙ্গে ফতিমাও থাকে সেখানে। তমালবাবুর ইচ্ছা ইব্রাহিমের মুখে শুনে সুদূর আগ্রা থেকে মেয়েকে নিয়ে কলকাতায় ছুটে আসেন তাহির ও তার স্ত্রী বুশরা। অষ্টমীর সকালে বাগুইআটির দত্তবাড়িতে পূজিতা হয় মুসলিম সম্প্রদায়ের কুমারী কন্যা ফতিমা।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি