ভারতজুড়ে মুসলিমদের ওপর নিপীড়ন শুরু হতে পারে: অরুন্ধতী রায়


অরুন্ধতী রায়

কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে পুরো ভারতজুড়ে মুসলিমদের ওপর নিপীড়ন শুরু হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশ্বখ্যাত ভারতীয় বুদ্ধিজীবি ও মানবাধিকার কর্মী অরুন্ধতী রায়। শুধু তাই নয়, এর ফলে ভারতীয় গণতন্ত্রের ওপরও কালোছায়া নেমে আসবে বলে আশঙ্কা তার।

তিনি বলেন, কাশ্মীরে যেখানে সরকার দাবি করছে যে গুটিকয়েক জঙ্গি ছাড়া বেশিরভাগ মানুষ তাদের সমর্থন করে, সেখানে কেন লাখ লাখ সেনার উপস্থিতি এমন প্রশ্ন রেখেছেন স্বনামধন্য ভারতীয় মানবাধিকারকর্মী অরুন্ধতী রায়।

তিনি বলেন, কাশ্মিরের নিরাপত্তা বাহিনীর টহল ও ব্যারিকেডে ঘেরা রাস্তাগুলোতে এখন সুনসান নীরবতা, প্রায় ৭০ লাখ মানুষ অবরুদ্ধ ও অপদস্থ অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে। কাঁটাতারে বন্দি এসব মানুষের ওপর ড্রোন দিয়ে নজরদারি চালানো হচ্ছে। যোগাযোগের ক্ষেত্রে পুরোপুরি অচলাবস্থার মধ্যে বাস করতে হচ্ছে তাদের। যদি তথ্যপ্রবাহের এ যুগে সরকার এতো সহজে গোটা জনসংখ্যাকে বাকি দুনিয়া থেকে কয়েক দিন ধরে বিচ্ছিন্ন করে রাখতে পারে, তবে সামনের সময়গুলো কেমন হবে তা গুরুতরভাবে ভাবনার বিষয়। ’

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এ প্রকাশিত তার লেখা এক দীর্ঘ নিবন্ধে এই আশঙ্কা প্রকাশ করেন এই স্বনামধন্য লেখিকা। কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে লেখা তার ওই নিবন্ধটি গত ১৫ আগস্ট নিউইয়র্ক টাইমস-এ প্রকাশিত হয়। ‘দ্য সাইলেন্স ইজ দ্য লাউডেস্ট সাউন্ড’ শিরোনামে লেখাটি প্রকাশ করে নিউইয়র্ক টাইমস। কাঁটাতারে বন্দি এসব মানুষের ওপর ড্রোন দিয়ে নজরদারি চালানো হচ্ছে। যোগাযোগের ক্ষেত্রে পুরোপুরি অচলাবস্থার মধ্যে বাস করতে হচ্ছে তাদের।

যদি তথ্যপ্রবাহের এ যুগে সরকার এত সহজে গোটা জনসংখ্যাকে বাকি দুনিয়া থেকে কয়েক দিন ধরে বিচ্ছিন্ন করে রাখতে পারে। তবে সামনের সময়গুলো কেমন হবে তা গুরুতরভাবে ভাবনার বিষয়। ’

নিউইয়র্ক টাইমসে লেখা নিবন্ধে এভাবেই কাশ্মীরের সাম্প্রতিক সংকটপূর্ণ পরিস্থিতি নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন স্বনামধন্য এ লেখিকা ও মানবাধিকারকর্মী।

সরকার যেখানে নিজেই দাবি করে যে গুটিকয়েক জঙ্গি ছাড়া বেশিরভাগ মানুষ তাদের সমর্থন করে, সেখানে কেন লাখ লাখ সেনার উপস্থিতি।

গত ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার কেড়ে নেয়া হয়।

জম্মু-কাশ্মীরকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করতে পার্লামেন্টে একটি বিলও পাস করা হয়েছে। এই পদক্ষেপকে কেন্দ্র করে কাশ্মীরজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত সেনা।

রাজ্য পুলিশসহ সেখানে প্রায় ৭ লাখ নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে, যা উপত্যকাকে বিশ্বের সবচেয়ে সামরিকীকৃত এলাকায় পরিণত করেছে।

৩৭০ ধারা বাতিলের আগ মুহূর্তে জম্মু-কাশ্মীরে আধাসামরিক বাহিনীর ৩৫ হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়। পরে নতুন করে সেখানে নিয়োজিত হয় আধাসামরিক বাহিনীর আরও ৮ হাজার সদস্য।

নিবন্ধে বলা হয়, গত ৩০ বছরে কাশ্মীরে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ যা কিছু করেছে, তা ক্ষমার অযোগ্য। কাশ্মীর সংঘাতে বেসামরিক, সামরিক ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য মিলিয়ে এ পর্যন্ত ৭০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। লাখো মানুষ গুম হয়েছে। নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে লাখ লাখ মানুষকে

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি