ট্রাক ড্রাইভার ছিলেন নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ধনী!

হার্টের

গ্রিমে হার্ট কৈশোরে বিদ্যালয় থেকে ঝরে পড়েছিলেন। অটো-বডি মেরামতকারী ও ট্রাক চালানোর কাজও করেন তিনি। বর্তমানে হার্ট নিউজিল্যান্ডে সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। ২০১৯ সালের এক হিসেবে তখন তিনি ছিলেন ৯৪০ কোটি ডলার সম্পদের মালিক।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মালিক হার্টের রয়েছে ব্যক্তিগত সুপার-ইয়ট ও সাবমেরিন। তবে তিনি বরাবরই নিজেকে আড়ালে রাখতে পছন্দ করেন।

গত সপ্তাহে স্টক মার্কেটে তার রেনল্ডস কনজ্যুমার প্রডাক্ট পা রাখার সঙ্গে সঙ্গে ফুলে ফেঁপে উঠে। ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার ইনডেক্স জানায়, প্রতিষ্ঠানটির গ্রিমে হার্টের স্টেকের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৪০ কোটি ডলার।

বিশ্বের অন্যতম বিলিয়নিয়ার গ্রিম হার্ট বিলাসী জীবন-যাপন করে, আর সেটা প্রকাশে তার কোনো সংকোচ নেই। একের পর এক বিলাসী প্রমোদতরী (সুপার ইয়ট) খরিদে তার সুখ্যাতি রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৩৮১ ফুট লম্বা ইউলিসিস। যার দাম ২০ কোটি ডলার। যাতে রয়েছে হেলিপ্যাড, ফ্রন্ট ডেস্কে রয়েছে আরেকটি ছোট ইয়ট।

তার আগে হার্ট ব্যবহৃত আরেকটি ইয়টের নামও ছিল ইউলিসিস, যা ছিল ব্যাটম্যান পিনবল মেশিনযুক্ত।

মধ্য-কৈশোরে বিদ্যালয় ছাড়েন হার্ট। এর পর অটো-বডি মেরামতকারী ও ট্রাক ড্রাইভার হিসেবে কাজ করেন। পরে নিউজিল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব অটাগো থেকে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০১৮ সালে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে এক বক্তৃতায় বলেন, “সাহসী হোন। এর অর্থ যতটা পারেন তত বড় কিছু কিনুন, আপনার যতটা সম্ভব ধার করুন এবং তারপরে এই সম্পদ নিয়ে যতটা সম্ভব কাজ করুন।”

হার্টের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে র্যাঙ্ক গ্রুপ, বার্নস ফিলিপ, কার্টার হল্ট হার্ভে ও রেনল্ডস প্যাকেজিং গ্রুপসহ আরও কিছু উদ্যোগ।


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/oeazq8
mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ