ঠাকুরগাঁওয়ে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড, পুলিশ দেখে দোকান বন্ধ(ভিডিও)

১০৪৪
ঠাকুরগাঁওয়ে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড, পুলিশ দেখে দোকান বন্ধ(ভিডিও)

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে সকাল থেকে শুরু হয়েছে লবণ কেনার প্রতিযোগিতা। কেউ ২ কেজি, কেউবা ৩ কেজি আবার অনেকে পুরো মাসের লবণ কিনে বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছেন। লবণ কেনাকে কেন্দ্র করে ভোর থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত লবণ বিক্রির দোকানগুলোতে ছিল উপচে পড়া ভিড়।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকালে হঠাৎ লবণের দাম বাড়বে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ে পুরো এলাকায়। গ্রামের মানুষগুলো ছুটে আসা শুরু করে লবণ কেনার জন্য। এই সুযোগে ব্যবসায়ীরাও পেঁয়াজের মত লবণের দাম বৃদ্ধি করে। ২০ টাকার লবণ ঘণ্টার ব্যবধানে দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৮০ টাকা কেজিতে।

বালিয়াডাঙ্গী বাজারের ফল ব্যবসায়ী আমিরুল ইসলাম জানান, গুজবকে কাজে লাগিয়ে সকাল থেকেই লবণ ব্যবসায়ীরা দাম বৃদ্ধি শুরু করে। এলাকার সাধারণ মানুষদের ৩ কেজি, ৫ কেজি এমনকি ১০ কেজি পর্যন্ত লবণ কিনতে দেখা গেছে। অনেক অসাধু ব্যবসায়ী লবণ মজুদের অজুহাত দেখিয়ে চড়া মূল্যে বিক্রিও করেছেন।

লবণ ব্যবসায়ী করিমুল ইসলাম জানান, সকাল থেকে লবণের চাহিদা ব্যাপক। গত ৬ মাসেও এমন লবণ বিক্রি হয়নি। আমি প্যাকেটের মূল্য অনুযায়ী গ্রাহকদের কাছ থেকে লবণের দাম নিচ্ছি। বাকিদের বিষয়ে আমার জানা নেই। তবে লবণ সঙ্কট হবে এমন একটা গুজব ছড়ানোর ফলে এই প্রভাব পড়েছে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার খায়রুল আলম সুমন বলেন, ইতোমধ্যে বাজারে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বাজারে পেঁয়াজের মতো লবণের দাম বেড়েছে এমন গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোসাব্বেরুল হক বলেন, বিভিন্ন মানুষ সকাল থেকে মুঠোফোনে অনেক অভিযোগ করছেন লবণের বিষয়ে। এটি একটি নিছক গুজব। গুজবে কান না দিয়ে ন্যায্যমূল্যে লবণ কেনার পাশাপাশি কোনো ব্যবসায়ী লবণের অতিরিক্ত মূল্য দাবি করলে তার কাছ থেকে রশিদ নিয়ে লবণ কেনার জন্য বলেন। সেই রশিদ থানায় দেখালে ওই লবণ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে লবণের এই লঙ্কাকাণ্ড নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কামরুজ্জামান সেলিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকের মাধ্যমে সতর্ক করে জানিয়েছেন, লবণসহ সকল নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সরবরাহ স্বাভাবিক আছে। কেউ গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


ঊম্মে হাবিবা মিম
ঊম্মে হাবিবা মিম
https://www.awaazbd.net/author/201910281572260025
mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ