'হাতাহাতির' ভাইরাল ভিডিও নিয়ে ব্যারিস্টার সুমন যা বললেন

৪৭৩৯
সুমন

ব্যরিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। যিনি ‘লাইভ’ বা ‘ভাইরাল’ সুমন নামেই বেশি পরিচিত। তার এই পরিচিতি এসেছে ফেইসবুক লাইভ দিয়ে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আলোচিত এই প্রসিকিউটর ফেসবুক লাইভে এসে সমাজের নানা অসঙ্গতি তুলে ধরেন। যার বেশিরভাগ লাইভের পর প্রশাসনের পক্ষ থেকে টনক নড়তে দেখা যায়।

সম্প্রতি তারই একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তবে এটি প্রশাসনের কোনো অসঙ্গতির ভাইরাল ভিডিও নয়। বছরখানেক আগে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্মেলন কক্ষে হাতাহাতির একটি ভিডিও। এতে দেখা যায়, আইনজীবী সুমনসহ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্যরা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েছেন। সেখানে সুমনকেও বেশ মারমুখি হতেও দেখা যায়। তবে ভিডিওটির শব্দ স্পষ্ট নয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা ভিডিওটি শেয়ার করছেন তাদের বেশিরভাগই এমন সব বার্তা দিয়ে শেয়ার করছেন মনে হচ্ছে, কিছুক্ষণ আগেই ঘটনাটি ঘটেছে। আবার অনেকে সুমনের আচরণে অবাক হয়েছেন।

ভিডিওটি নিয়ে ব্যরিস্টার সুমন কথা বলেছেন একটি অনলাইন গণমাধ্যমের সঙ্গে। তিনি জানান, এটি বছরখানেক আগের ভিডিও। বলেন, ‘এটা ঘটেছিল সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কনফারেন্স রুমে। মূলত আমাদের আইনজীবীদের জন্য করা এই রুমে রাজনৈতিক দলের নেতারা প্রায়ই বিভিন্ন সভা করত। যার কারণে আমরা আমাদের রুমটা কাজ থাকলে ব্যবহার করতে পারতাম না। এ বিষয় নিয়েই তর্কাতর্কি থেকে এ ঘটনা ঘটেছে। ’

বছরখানেক আগের ভিডিও ভাইরালের পেছনে অন্য কোনো উদ্দেশ্য আছে বলে ধারণা সুমনের। বলেন, ‘আমাকে হেয় বা তার ভালো কাজগুলো থামিয়ে দেওয়ার জন্যই এমন উদ্যোগ নিয়েছে এক শ্রেণির মানুষ। ’

কারা এমন কাজ করতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে সুমন বলেন, ‘জামাত-শিবিরের ছেলেরা আমার বিরুদ্ধে লেগে লাগত। এই ছেলেরাই এমন কাজ করছে, তারা চায় না আমি ভালো কাজ করে আলোচনায় থাকি। ’

এ সময় সুমন নিজের করা লাইভ ও তার ভবিষ্যত পরিকল্পনার কথাও জানান। বলেন, ‘কোনো কিছুতেই থেমে যাওয়ার মানুষ আমি নই। সমাজ আর প্রশাসনের অসঙ্গতি নিয়ে জীবনের শেষ পর্যন্ত সমাজের জন্য কাজ করে যাব। ’

সূত্র: ঢাকাটাইমস


mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ