কুকুর অপসারণে ইঁদুর ও প্লেগের প্রাদুর্ভাব হতে পারে: বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)
ফাইল ছবি

বেওয়ারিশ কুকুর অপসারণ করলে ইঁদুর ও প্লেগ রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)।

শুক্রবার এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানায় বাপা। এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) বেওয়ারিশ কুকুর অপসারণ বন্ধের দাবিও জানায় সংস্থাটি।

এতে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাপার যুগ্ম সম্পাদক শারমিন মুরশিদ। অনলাইন সংবাদ সম্মেলন সঞ্চলনা করেন বাপার সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল।

ডিএসসিসির কুকুর অপসারণের সিদ্ধান্তকে অবৈজ্ঞানিক, অমানবিক ও বেআইনি উল্লেখ করে শারমিন মুরশিদ বলেন, 'প্রাণি কল্যাণ আইন, ২০১৯' অনুযায়ী এই কার্যক্রম সম্পূর্ণ বেআইনি। কুকুর আপসারণ নয়, জলাতঙ্ক টিকা ও বন্ধ্যাত্মকরণ কর্মসূচি চালু করতে হবে। কুকুরসহ পোষা প্রাণী অপসারণে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কুকুর অপসারণ করলে ইঁদুরের প্রকোপ বেড়ে যেতে পারে, প্লেগ রোগের প্রাদর্ভাব দেখা দিতে পারে।

উদাহরণ হিসেবে বাপার যুগ্ম সম্পাদক বলেন, ১৯৯৪ সালে ভারতের একটি শহরে বিপুল সংখ্যাক কুকুর নিধন করা হয়ে। এর ফলে ইঁদুরের প্রকোপ বেড়ে যায়। প্লেগ রোগের প্রাদুর্ভাবও দেখা দেয়।

এসএম/আওয়াজবিডি


আওয়াজবিডি
আওয়াজবিডি
https://www.awaazbd.net/author/shafiqul002
mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ