করোনা রোধে প্রথমবার পুরো ভুটানে লকডাউন

ভুটান

কোরায়ারেন্টাইন থেকে মুক্ত বিদেশ ফেরত এক নাগরিকের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ায় সংক্রমণের বিস্তার রোধে প্রথমবারের মতো পুরো দেশ জুড়ে লকডাউন আরোপ করেছে ভুটান।

বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএপি’র খবরে বলা হয়েছে, লকডাউনে নাগরিকদের ঘরে থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে। এই সময়ে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত, ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

ভুটান সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, করোনায় আক্রান্তদের সবাইকে শনাক্ত করে আইসোলেশনে নিতে এবং সংক্রমণ রোধ করতে এই লকডাউনের মেয়াদ হতে পারে পাঁচ থেকে ২১ দিন।

এপি’র খবরে বলা হয়, সম্প্রতি ২৭ বছর বয়সী এক ভুটানিজ নারী কুয়েত থেকে দেশে ফেরার পর অন্যদের মতো তাকেই বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়। তার করোনা পরীক্ষা নেগেটিভ আসে। কিন্তু কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়া পাওয়ার পর গত সোমবার ওই নারীর আবার করোনা টেস্ট করালে রিপোর্ট আসে পজিটিভ।

ধারণা করা হচ্ছে, এই কয়দিনে গোটা ভুটান জুড়ে ভ্রমণ করে ফেলেছেন ওই নারী। ফলে সম্ভাব্য সংক্রমণ রোধে গোটা ভুটান জুড়েই লকডাউন আরোপ করা হয়েছে।

গত মার্চে আমেরিকান একজন আমেরিকান পর্যটক  কোভিড-১৯ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর থেকে বিদেশিদের জন্য ভুটান তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে। ভুটানে এখন পর্যন্ত ১১৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। আক্রান্তদের সবাই ছিলেন বিদেশ থেকে ফেরা।

এম আর/আওয়াজবিডি


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaazbdonlinenews

অনলাইন ডেস্ক

mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ