গৃহবধূ মেয়ের হত্যার বিচার চেয়ে নিজ বাড়িতে মায়ের সংবাদ সম্মেলন

১৪৭
সম্মেলন
ছবি- আওয়াজবিডি

গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ীতে রোমানা হত্যার বিচার চেয়ে নিহতের মা লাইজু বেগমের এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন।

শনিবার দুপুরে পলাশবাড়ী পৌরশহরের হরিনমারী গ্রামের নিজ বাড়ীতে এ সংবাদ সম্মেলন হয়।

এতে নিহত গৃহবধূ মা তার লিখিত বক্তব্য জানান, প্রায় ৩/৪ বৎসর পূর্বে আমার মেয়ে রোমনাকে ধর্মীয় শরাশরীয়ত মোতাবেক উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের জাইতর বালা গ্রামে নজরুল মিয়ার ছেলে আঃ রহিমের সাথে বিবাহ দেই। বিবাহের পর থেকে জামাই আঃ রহিম যৌতুকসহ বিভিন্ন কারণে আমার মেয়েকে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল। এর মধ্যে সে একটি পুত্র সন্তানের মা হয় গৃহবধূ রোমানা বেগম। ঘটনার দিন গত ৩ আগস্ট রাত্রি অনুমান সাড়ে ১২ টার সময় আমার মেয়ের শ্বশুর নজরুল মিয়া আমার স্বামীকে ফোন করে জানায় তোমার মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এরপর আমরা দ্রুত সেখানে পৌঁছিয়ে দেখিতে পাই পশ্চিম দুয়ারী ঘরের খাটের উপর আমার মেয়ে রোমানার মরদেহ রাখা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমার মেয়ের মুখের উপর থাকা গামছা সরাইয়া দেখিতে পাই যে, আমার মেয়ের দুই চোয়ালেও উপর মারডাং চিহ্নসহ নিচের ঠোটটি কালো এবং বাম পায়ের উরু লাল ও ফুলিয়া রহিয়াছে। আমার বিশ্বাস জামাইসহ শ্বশুর বাড়ীর লোকজন আমার মেয়েকে মারডাং করিয়া তাহার মুখে ওড়না গুজাইয়া মৃত্যু ঘটাইয়াছে। আমি আমার মেয়ের হত্যাকান্ডের বিষয়ে সুষ্ঠতদন্ত পূর্বক দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গাইবান্ধা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

এসএম/আওয়াজবিডি


mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ