করোনা ছড়ানোর জন্য মুসলিমদেরকেই দায়ী করছে ব্রিটিশরা

মুসলিম

করোনাভাইরাস নিয়ে নানা ধরনের ষড়যন্ত্রতত্ত্ব ছড়িয়ে পড়ছে ব্রিটেনে। সিএনএন বলছে, এই তালিকায় নতুন আক্রমণের শিকার সংখ্যালঘু মুসলিমরা।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গত সপ্তাহে ব্রিটিশ সরকার উত্তর ইংল্যান্ডের কিছু এলাকায় হঠাৎ করে লকডাউনের নির্দেশনা দেয়। এই ঘোষণা এমন সময় আসে যখন সেখানকার মুসলিম কমিউনিটি ঈদের প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

স্থানীয় মুসলিম নেতারা সরকারের সমালোচনা করে বলেন, এই সময়ে উদ্দেশ্যমূলকভাবে এমন ঘোষণা আসলে মুসলিমদের মনে আঘাত লাগবেই।

আকবর নামের এক ব্যক্তি বলেন, সরকার ঠিক ঈদের আগে এটা করলো, তার মানে সাধারণ মানুষ ধরেই নেবে মুসলিমরাই সবচেয়ে বেশি করোনা ছড়াচ্ছে।

এমন আলোচনার ভেতর ক্রেইগ হুইটেকার নামের এক স্থানীয় এমপি সংবাদমাধ্যমে বলেন, সংখ্যালঘুরা করোনার বিধিনিষেধ মানছে না।

মুসলিমদের কথা বলছেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে ক্রেইগ বলেন, অবশ্যই

ব্রিটেনের বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া এই রোগে সেখানকার বাংলাদেশি কমিউনিটি বেশি ভুগছে। তাদের মৃত্যুহার শ্বেতাঙ্গদের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ। বাংলাদেশিদের অভিযোগ, ব্রিটিশ সরকার তাদের স্বাস্থ্যের দিকে যুগ-যুগ ধরে কোনো নজর দেয়নি।

নতুন এই রোগটিতে গোটা পৃথিবীর মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৯০ লাখ ৬ হাজার ৬৯২ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৯৩ হাজার ৫৮৪ জন। মারা গেছেন ৭ লাখ ১১ হাজার ৮৭৬ জন।

এম আর/আওয়াজবিডি


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaazbdonlinenews

অনলাইন ডেস্ক

mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ