বিস্ফোরণের ভয়াবহতায় হতভম্ব লেবানন, জারি হতে পারে জরুরি অবস্থা

হতভম্ব লেবানন

বিস্ফোরণের ভয়াবহতায় হতভম্ব পুরো লেবানন। দেশটির প্রেসিডেন্ট জানান, ছয় বছর ধরে বন্দরের কাছে একটি গুদামে প্রায় তিন হাজার টন অ্যামোনিয়াম নাইট্টেট মজুদ ছিল, যা ব্যবহার হয় বোমা তৈরিতে। করণীয় ঠিক করতে বুধবার মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন তিনি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দুই সপ্তাহের জরুরি অবস্থা জারি করা হতে পারে বলেও জানান লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আওন।

লেবাননে বুধবারের (০৫ আগস্ট) সকাল কেবলই ধ্বংসের। চারিদিকে বিনাশের চিহ্ণ। আগের দিন ঘটে যাওয়া সাম্প্রতিক সময়ের ভয়াবহতম বিস্ফোরণ স্তব্ধ করে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে।

মাশরুমের মতো ধোঁয়ার এই কুণ্ডলি মনে করিয়ে দেয় হিরোশিমা নাগাসাকিতে পারমাণবিক হামলার ভয়াবহতার কথা। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় বৈরুত বন্দরের কাছে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গিয়েছিল প্রায় আড়াইশ কিলোমিটার দূরের সাইপ্রাসের একটি দ্বীপ থেকেও। বিস্ফোরণে মুহূর্তেই ধসে পড়ে আশপাশের একের পর এক ভবন। ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয় পুরো এলাকা।

লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আওন জানান, প্রায় ছয় বছর ধরে বন্দরে কাছের একটি গুদামে মজুদ ছিল ২ হাজার ৭৫০ টন শক্তিশালী বিস্ফোরক অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট।

যদিও এত বড় বিস্ফোরণের সঠিক কারণ এবং ক্ষয়ক্ষতি এখনই নিরূপণ সম্ভব নয় বলেও জানায় লেবানন প্রশাসন।

এদিকে, বিস্ফোরণের পরপরই এর সঙ্গে কোন ধরনের সম্পৃক্ততা অস্বীকার করে লেবাননের সশস্ত্রগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। এমনকি দেশটিতে হিজবুল্লাহর অবস্থান লক্ষ্য করে প্রায়ই রকেট হামলা চালানো ইসরাইলও জানায়, তারা কোনভাবেই জড়িত নয় এর সঙ্গে।

এদিকে, চলমান পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করতে বুধবার মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছেন প্রেসিডেন্ট আওন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দুই সপ্তাহের জরুরি অবস্থা জারি করা হতে পারে বলেও জানান লেবাননের প্রেসিডেন্ট।

এসএম/আওয়াজবিডি 


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaazbdonlinenews

অনলাইন ডেস্ক

mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ