করোনাভাইরাস: নিউইয়র্ক সিটিতে মৃত্যুশূন্য একটি দিন

ব্লাজিও

আগের দিনের তুলনায় গত একদিনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কিছুটা কমেছে প্রাণহানি। তবে সমতলে রয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। ওয়ার্ল্ডো মিটারের তথ্যমথে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৬০ হাজারের বেশি মানুষের দেহে মিলেছে ভাইরাসটির সংক্রমণ।

ফলে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ লাখ ৫৬ হাজার ছাড়িয়েছে। নতুন ৩৮০ জনের বেশি মানুষের প্রাণহানি বেড়ে ১ লাখ ৩৮ হাজার ৩২ জনে ঠেকেছে। এর মধ্যে সুস্থতা লাভ করেছেন ১৫ লাখ ৩৬ হাজারের বেশি ভুক্তভোগী।

সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা নিউইয়র্ক রাজ্যে। সবশেষ নিউইয়র্ক রাজ্যে ৪৪ জন করোনাভাইরাসে মারা গেছেন। তবে এর মধ্যে একটি ভালো খবর দিলেন নগরীর মেয়র ডি ব্লাজিও।

ব্লাজিও সোমবারের নিয়মিত প্রেসব্রিফিংয়ে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় নগরীতে করোনাভাইরাসে কেউ মারা যাননি। জুলাইমাসে এই প্রথম মৃত্যুশূন্য দেখল নিউইয়র্ক।

তবে মেয়র সতর্ক করে বলেন, তার মানে এই নয় যে ভাইরাসটি চলে গেছে। নতুন করে ২০ থেকে ২৯ বছর বয়সী তরুণ করোনায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন, যা সত্যি উদ্বিগ্নের বিষয়।

ভাইরাস প্রতিরোধে মেয়র দ্বিগুনহারে টেস্টিং ভ্যান, মাস্ক বিতরণ, বেশি করে প্রচারের মাধ্যমে তরুণদের সচেতনতা করতে নজর দিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেন।

এ ছাড়া সর্বসাধারণের জন্য নগরীর ব্রঙ্কস, কুইন্স, ব্রুকলিনে নতুন ১০টি করোনা টেস্টিং সাইটস উন্মুক্ত আছে বলেও জানান তিনি।

শাহ আহমদ সাজ
শাহ আহমদ সাজ
https://www.awaazbd.net/author/awaaz-usa

শাহ আহমদ সাজ ১৯৮৭ সালে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় জন্মগ্রহন করেন। শিক্ষা জীবনের শুরু ঢাকার সানরাইজ প্রি ক্যাডেট এন্ড কলেজে। তারপর ২০০৪ সালে কুলাউড়ার জালালাবাদ হাইস্কুল থেকে এসএসসি, ২০০৬ সালে মদন মোহন কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন। ২০০৭ সালে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ইংরেজি অনার্সে ভর্তি হন।এরপর ইনফরমেশন টেকনোলজিতে পড়ালেখার জন্য লন্ডনে পাড়ি জমান এবং ক্রাউন ইন্টারন্যাশনাল কলেজে ব্যাচেলর শেষ করেন। বর্তমানে সপরিবারের যুক্তরাস্ট্রে বসবাসরত শাহ আহমদ, ছাত্রজীবন থেকেই সাহিত্য ও সৃজনশীল সবধরনের কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। ২০১৬ সাল থেকে আওয়াজবিডি ও সাপ্তাহিক আওয়াজবিডির প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশের দায়িত্ব পালন করছেন।শাহ আহমদ বাংলাদেশ ডন-এর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক।

ads