টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারী নিহত

১৬৯
বিজিবি

কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবি সদস্যদের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সৈয়দ আলম (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। নিহত যুবক মাদক পাচারকারী বলে দাবী করেছে বিজিবি। এ সময় ঘটনাস্থল হতে ৪০ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরি এলজি ও এক রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাত ১২টায় হ্নীলা (উচ্চারণ-নীলা) ইউনিয়নের দমদমিয়া এলাকায় নাফ নদীর তীরে কথিত বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন বিজিবি টেকনাফ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফয়সল হাসান খান।

তিনি আরও জানান, মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চালান পাচারের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দমদমিয়া কেয়ারী খাল এলাকায় নাফ নদীর তীরে অবস্থান নেয় বিজিবির একটি দল। এ সময় নদী পার হয়ে এক ব্যক্তিকে কূলে উঠতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে আটককালে আগে থেকে উৎপেতে থাকা সহযোগীরা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ করে গুলিবর্ষণ করে। এতে দুইজন বিজিবি সদস্য আহত হন। পরে বিজিবিও পাল্টা গুলি চালালে পাচারকারীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ একজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বিজিবি জানায়, নিহত ব্যক্তি পুরাতন রোহিঙ্গা। সে পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকার সৈয়দ আহমদের ছেলে।এদিকে ঘটনাস্থলে তল্লাশি করে ৪০ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরি এলজি ও এক রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছেন।

আওয়াজবিডি ডেস্ক
আওয়াজবিডি ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaaz-news

অনলাইন ডেস্ক

ads