এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে উপনির্বাচন না করতে ইসিকে জাতীয় পার্টির চিঠি

১৫২
এরশাদে

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ (এইচএম) এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে যশোর ও বগুড়ায় উপনির্বাচন না করতে নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) চিঠি দিয়ে অনুরোধ করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সরদার শাহজাহান, জাতীয় পার্টির সাহিত্য সম্পাদক সুমন আশরাফ এবং যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক মাহমুদ আলম জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের চিঠিটি নির্বাচন কমিশনে পৌঁছে দিয়েছেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে দেওয়া চিঠিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, গেলো বছর ১৪ জুলাই সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বর্তমান সংসদের বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্ব পালনকালে ইন্তেকাল করেন। জাতীয় পার্টি ১৪ জুলাই দলগতভাবে শোক দিবস হিসেবে পালন করবে। দেশবাসী এই দিনে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবেন পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে। ১

৪ জুলাই জাতীয় পার্টির অগণিত নেতা-কর্মী-সমর্থক-শুভানুধ্যায়ীদের কাছে অত্যন্ত শোকাবহ অনুভূতির দিন। চিঠিতে জিএম কাদের বলেন, অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, পল্লীবন্ধু এরশাদের প্রথম মৃত্যুর তারিখে যশোর ও বগুড়ার দুটি সংসদীয় আসনে উপনির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

এটা হয়তো অসতর্কতার কারণেও হতে পারে। তাই ১৪ জুলাইয়ের আগে-পরে যেকোন দিনে উপনির্বাচনের তারিখ পুনঃনির্ধারণ করে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি এবং বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করবেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনারের কাছে দেওয়া চিঠিতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান আরও বলেন, জাতীয় পার্টি গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে সব সময় ভূমিকা রেখে আসছে। আমরা প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও সব সময় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে আসছি। তিনি বলেন, ঘোষিত নির্বাচনেও জাতীয় পার্টির অংশগ্রহণ আছে।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, নির্দিষ্ট সময়ে উপনির্বাচন অনুষ্ঠানে একটা সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা আছে। তবে, করোনা সংক্রমণ জনিত বৈশ্বিক পরিস্থিতির কারণে সেই বাধ্যবাধকতার গন্ডি ইতোমধ্যেই পার হয়ে গেছে।

জিএম কাদের বলেন, যেকোন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ এবং পরিবর্তনের এখতিয়ার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের আছে। অতীতেও প্রয়োজনে ঘোষিত নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে নির্বাচন কমিশন।

তাছাড়া সপ্তাহের মাঝে নির্বাচন অনুষ্ঠানের নজিরও নেই। তাই, যশোর ও বগুড়া উপনির্বাচনের ঘোষিত তারিখ পরিবর্তন করে জাতীয় পার্টির অগণিত নেতা-কর্মীর অনুভূতির প্রতি সহানুভূতি দেখাতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের প্রতি আহবান জানিয়েছেন বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি

আওয়াজবিডি ডেস্ক
আওয়াজবিডি ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaaz-news

অনলাইন ডেস্ক

ads