টঙ্গীতে স্ত্রীর হাতে স্বামী খুন

২১১
খুন

টঙ্গীতে রহস্যজনক স্বামী সাইফুল ইসলামকে (৫০) গলা কেটে হত্যা করেছে তার স্ত্রী বিউটি আক্তার। বুধবার সকালে দত্তপাড়া এলাকার কুদ্দুসের বাড়িতে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইফুল ইসলাম রংপুরের গঙ্গারচর থানার চাঁনবাগ গ্রামের সামসুল ইসলামের ছেলে। তিনি পেশায় একজন পান বিক্রেতা । পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনায় পুলিশ একটি রক্তমাখা ধাঁরালো ছুঁরিসহ স্ত্রী বিউটি আক্তারকে আটক করেছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই বাবুল জানান, ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে । সকালে বিউটি আক্তার কর্মস্থল যাওয়ার পূর্বেই ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামীর গলায় ছুরি চালিয়ে হত্যা করে। পরে কাজে চলে যায় ।বেলা ১০টায় পাশের ভাড়াটিয়ারা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশে খবর দেয় । খবর পেয়ে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।

নিহত ব্যক্তি দুই সন্তানের জনক। নিহতের ছেলে আরিফ (১৭) বলেন, মা-বাবা প্রায়ই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া করতেন। আজ সকালে আবার ঝগড়া করেন। মা অফিসে যাওয়ার আগেই বাবাকে ছুড়ি দিয়ে গলা কেটে ঘরে তালা বন্ধ করে চলে যান।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার্স ইনচার্জ মু. আমিনুল ইসলাম জানান, হত্যাকান্ডের তদন্ত চলছে, কেনো হত্যা করা হয়েছে তা জানা যায়নি । হত্যার সাথে জড়িত মহিলা অসুস্থ রয়েছে, তাকে জিগ্গাসাবাদের চেষ্টা চলছে ।

ঘটনার পর পর পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (পিবিআই) গাজীপুর এর পুলিশ সুপার মো.মাকসুদুর রহমানের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শনসহ ছায়া তদন্তে মাঠে নেমেছেন।

এব্যাপারে পিবিআই পুলিশ সুপার জানান, ঘটনাটির তদন্ত চলছে, অতিশীঘ্রই এর মূল রহস্য উদঘাটন করা হবে।

ads