জর্জ ফ্লয়েড হত্যা

হাঁটু গেড়ে বসে বিক্ষোভে সংহতি ট্রুডোর

৩৩৪
সংহতি ট্রুডোর

শ্বেতাঙ্গ পুলিশ অফিসারের হাতে কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র। বর্ণবাদ বিরোধী ও পুলিশি নির্যাতনের বিরুদ্ধে দেশটির আন্দোলনকারীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছেন প্রতিবেশী কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও।

মিনেপোলিসে পুলিশ ফ্লয়েডের গলায় যেভাবে হাঁটু চেপে ধরে দম বন্ধ করে হত্যা করেছিল শুক্রবার কানাডার পার্লামেন্টের সামনে সেভাবে হাঁটু গেড়ে বসে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভকারীদের প্রতি সমর্থন জানান ট্রুডো।

মিনেপোলিসে গত ২৫ মে জর্জ ফ্লয়েড নামে কৃষ্ণাঙ্গ এক যুবককে সিনেমাটিক কায়দায় হাঁটু চেপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটার শ্বেতাঙ্গ এক পুলিশ অফিসার।তাতে জড়িত চার পুলিশ অফিসারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে কঠিন হত্যা মামলা। কিন্তু পরিস্থিতি কিছুতেই শান্ত হচ্ছে না। পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ হচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন।

বরং বিক্ষোভের আগুন ছড়িয়ে পড়ছে অন্যান্য দেশেও।যুক্তরাষ্ট্রের আন্দোলনকারীদের সমর্থন জানিয়ে কানাডা জুড়েও বিক্ষোভ হয়েছে। তাতে সমর্থন জানালেন দেশটির প্রধানমন্ত্রীও। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে খুব কমই জনসমাগমে অনেকটাই কম আসেন ট্রুডো। আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়াতে শুক্রবার নিজ থেকেই জনসমাগমে আসেন তিনি।

এর আগে সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো বলেন, (যুক্তরাষ্ট্রে) আইন প্রয়োগকারী বাহিনীর সদস্যদের আক্রমণাত্মক দৃশ্য দেখে দূরে থাকলেও অনেক কানাডিয়ান ভয় পাচ্ছে এবং তারা উদ্বিগ্নও। এ সময় ব্লাক লিভস ম্যাটার লেখা টি-শার্ট তুলে ধরে ট্রুডো বলেন, "গত কয়েক সপ্তাহে আমরা দেখেছি, অনেক কানাডীয় হঠাৎ করেই জেগে উঠেছে। এই কারণে যে, বৈষম্যের বিষয়টা আমাদের অনেক নাগরিকের মধ্যেও রয়েছে। এটা শেষ হওয়া দরকার।

আওয়াজবিডি ডেস্ক
আওয়াজবিডি ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaaz-news

অনলাইন ডেস্ক

ads