পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন ধর্ষণের শিকার সেই কিশোরী ফুটবলার

৪৬৮
শেরপুর

শেরপুরের নকলায় প্রতিবেশীর হাতে ধর্ষণের শিকার সেই কিশোরী ফুটবলার ছেলে সন্তান প্রসব করেছেন। ১৩ মে তার কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে ছেলেটি।

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর অভিযোগ, একবছর আগে প্রতিবেশী আজগর আলী ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। এতেই তিনি অন্তঃসত্ত্বা হন।

অভিযুক্ত আজগর আলী নকলা পৌর এলাকার কুর্শাবাদগৈড় মহল্লার টেপু মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত পর্বে অংশ নেয়া ওই কিশোরীর বাবা বছরখানেক আগে মারা যান। পরিবারের খরচ জোগাতে তার মা অন্যের বাড়িতে কাজ নেন। মায়ের কষ্ট কমাতে শেরপুর-টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় ফুটবল খেলতেন তিনি।

ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, একবছর আগে ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন আজগর আলী। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আরো কয়েকবার ধর্ষণ করলে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন তিনি। বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টায় একাধিকবার সালিশ বসায় ধর্ষকের পরিবার। এমনকি ওই কিশোরীর পরিবারকে গ্রামছাড়া করার চেষ্টাও করে ধর্ষক। ১৩ মে নিজ বাড়িতে ওই কিশোরীর ছেলের জন্ম হয়। বৃহস্পতিবার আট দিনের ছেলেকে নিয়ে নকলা থানায় যান তিনি। পরে আজগর আলীর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

নকলা থানার ওসি মো. আলমগীর শাহ জানান, ১০ মাস আগের ঘটনা, অথচ একবারের জন্যও ওই কিশোরী বা তার পরিবার অভিযোগ করেনি। মামলার পর বৃহস্পতিবার রাতেই আজগর আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, অভিযুক্ত আজগর আলীকে শুক্রবার বিচারিক হাকিমের আদালতে হাজির করা হয়েছে। বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য শেরপুর জেলা হাসপাতালে পাঠানো হবে।

এসএম/আওয়াজবিডি


অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://www.awaazbd.net/author/awaazbdonlinenews

অনলাইন ডেস্ক

mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ